প্যান্টে ‘ইয়ে’ করে দেয়ায় শিক্ষার্থীর সঙ্গে এ কী আচরণ শিক্ষকের!

0 180

স্কুলে প্যান্টে ‘হাগু’ করে দেওয়ায় ৫ বছর বয়সী এক প্রতিবন্ধী শিশুকে তার মলের উপর দুই ঘণ্টা ধরে বসে থাকতে বাধ্য করলেন এক শিক্ষক! ছোট্ট শিশুশিক্ষার্থীর সঙ্গে এমন দুর্ব্যবহারের জন্য ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে কানাডার জর্জিয়া রাজ্যের কব কাউন্টির ফ্রেই এলিমেন্টারি স্কুলে।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ওই শিশু শিক্ষার্থী স্কুলের শৌচাগারে গেলেও চাপের কারণে ধরে রাখতে ব্যর্থ হয়ে নিজের প্যান্টেই হাগু করে দেয়। এ ঘটনায় ক্ষিপ্ত হন কেলি লুই নামে তার এক শ্রেণি শিক্ষক। শিক্ষার্থীটিকে শৌচাগারের আচার-আচরণ বা অভ্যাস বিষয়ে শিক্ষা দিতে এ ঘটনা ব্যবহার করেন ওই শিক্ষক। এর অংশ হিসেবে শিশুটিকে নিজের মলের উপর দুই ঘণ্টা বসে থাকতে বাধ্য করেন তিনি। আদালতে দেয়া এক সাক্ষীর বক্তব্যের বরাতে এ তথ্য প্রকাশিত হয়।

কাউন্টির পুলিশের বরাতে খবরে বলা হয়, শিক্ষকের ওই আচরণে শিশুশিক্ষার্থীর পশ্চাৎদেশ লালচে হয়ে যায় ও চুলকানি হয়। সেইসঙ্গে সে মানসিক কষ্টও পেয়েছে। শিক্ষকের এমন আচরণে স্কুলের অন্য শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরাও স্তম্ভিত এবং ব্যথিত হয়েছেন।

নিচের লিংকটি আপনার পছন্দ হতে পারে :

Down শব্দের গুরুত্বপূর্ণ নানান রকম ব্যবহার (প্রথম পর্ব)

এদিকে, শিক্ষক কেলি লুইকে তার আচরণের জন্য গ্রেফতার করা হলেও পরে বন্ডের বিনিময়ে জামিন দেয়া হয়। তার বিরুদ্ধে শিশুদের প্রতি বর্বরতার দ্বিতীয় মাত্রার অভিযোগ আনা হয়েছে। সেইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানে তার প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং ১৬ বছরের নিচে কারও সঙ্গে যোগাযোগেও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। কব কাউন্টির আদালতের নথির বরাতে এ তথ্য দেয় স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো। সূত্র : সিটিভি নিউজ অনলাইন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.